ফরিদগঞ্জের সাবেক এমপি মরহুম অ্যাড. সিরাজুল ইসলামের সহধর্মিণীর ইন্তেকাল


মামুন হোসাইন: মুক্তিযুদ্ধে সংগঠক, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক এমপি মরহুম অ্যাড. সিরাজুল ইসলামের সহধর্মিণী এবং ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারনম্যান ও চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমানের মা সায়েরা খাতুন আর বেঁচে নেই। (ইন্নালিল্লাহি…. রাজিউন)।


১৪ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকেল ২টা ৪৫ মিনিটে  তিনি ঢাকায় বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। মৃত্যুকালে তিনি ৩ ছেলে, ২কন্যা, নাতি-নাতনিসহ বহু আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে যান। এর আগে বেশ কয়েকদিন ধরে তিনি করনা আক্রান্ত হয়ে উল্লেখিত হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন ছিলেন। আজ সোমবার রাত ১০ টায় চাঁদপুর শহরের ঐতিহাসিক বেগম জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে মরহুমার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তার গ্রামের বাড়ি ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার চরকুমিরায় রাত ১টায় দ্বিতীয় জানাজা শেষে, তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হব।


প্রসঙ্গত, মরহুমা সায়েরা খাতুনের স্বামী মরহুম অ্যাড. সিরাজুল ইসলাম মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক,মহকুমা সংগ্রাম পরিষদের আহব্বায়ক, ফরিদগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, চাঁদপুর মহকুমা এবং পরবর্তীতে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি ছিলেন। ১৯৭০ সালে উপনির্বাচনে কুমিল্লা-২৫ অঞ্চল থেকে সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হন। অ্যাড. সিরাজুল ইসলামের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তার স্ত্রী মরহুমা সায়েরা খাতুন পাশে থেকে প্রেরণা যুগিয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে, শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, জেলা আওয়ামীলীগ, ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ, চাঁদপুর ও ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র, চাঁদপুর প্রেসক্লাব, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাব, সাপ্তাহিক আলোকিত ফরিদগঞ্জ পরিবারসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *