ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বিশ্ব প্রবীণ দিবসের শোভাযাত্রা ও আলোচনা

বিশ্ব প্রবীণ দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ প্রবীণ নাগরিক কল্যাণ সোসাইটির উদ্যোগে এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির পৃষ্ঠপোষকতায় একটি শোভাযাত্রা গত ১ অক্টোবর মঙ্গলবার ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়ক থেকে সোবহানবাগে অবস্থিত ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মুখ সড়ক পর্যন্ত প্রদক্ষিণ করেছে। শোভাযাত্রা শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শোভাযাত্রা উদ্বোধন ও আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-১০ আসনের সাংসদ ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিআইডিএস-এর সাবেক ঊর্ধ্বতন গবেষণা ফেলো ড. শরীফা বেগম। অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ইউসুফ মাহাবুবুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ প্রবীণ নাগরিক কল্যাণ সোসাইটির চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ ঊদ্দীন আহমেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এমপি বলেন, প্রবীণদের রয়েছে অভিজ্ঞতার ভা-ার এবং বিপুল কর্মদক্ষতা। তাদের অভিজ্ঞতা ও কর্মদক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। এসময় তিনি প্রবীণদের জন্য সরকারের গৃহীত নানা পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে বলেন, সরকার প্রবীণদের জন্য বয়স্ক ভাতা চালু করেছে এবং প্রতি বছরই বয়স্ক ভাতার পরিমাণ বাড়ানো হচ্ছে। এছাড়া সরকারি চাকরি থেকে অবসর গ্রহণের বয়স বাড়ানোসহ প্রবীণদের সামাজিক মর্যাদা বাড়ানোর জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এসব কারণে বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ুষ্কাল বেড়ে ৭২ বছরে পৌঁছেছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস আরো বলেন, প্রবীণদের জীবনমান উন্নয়নের জন্য সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন ধরনের প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বাড়াতে হবে এবং প্রবীণদের সুরক্ষায় সরকারের যেসব আইন রয়েছে সেসব আইনের প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। এসময় তিনি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি এবং প্রবীণ নাগরিক কল্যাণ সোসাইটিকে ধন্যবাদ জানান এমন একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *